যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন এর প্রধান ইসমাইল হানিয়া। তিনি বলেন, বোমার জবাব বোমা দিয়ে দেয়া হবে।

ইসরায়েলের সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হামাস যোদ্ধারা দৃঢ়চেতা অবস্থানে রয়েছে। খবর আনাদুলু এজেন্সির। টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে ইসমাইল হানিয়া বলেন, দখলদার ইসরায়েল সরকার যতদিন পর্যন্ত ফিলিস্তিনি জনগণের বিরুদ্ধে-

তার ঘৃণ্য অপরাধযজ্ঞ বন্ধ না করবে এবং পবিত্র জেরুজালেম আল-কুদস শহর ও আল আকসা মসজিদের ওপর দখলদারিত্বের অবসান না ঘটাবে, ততদিন পর্যন্ত হামাস যোদ্ধারা প্রতিরোধ লড়াই অব্যাহত রাখার কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত ইহুদিবাদী ইসরায়েল তার আগ্রাসন এবং সহিংসতা অব্যাহত রাখবে ততক্ষণ পর্যন্ত তার জবাব দেয়ার অধিকার রাখে ফিলিস্তিনিরা। ফিলিস্তিনি জনগণকে রক্ষার অধিকার হামাসের রয়েছে।’

গাজা উপত্যকা থেকে প্রতিরোধ যোদ্ধারা ইসরাইলের রাজধানী তেল আবিবে একসাথে যে ১৩০টি রকেট হামলা চালিয়েছে তার ভূঁয়সী প্রশংসা করেন ইসমাইল হানিয়া। তিনি বলেন, ‘পবিত্র জেরুজালেম ও আল আকসা মসজিদ রক্ষায় আমরা বিজয় লাভ করেছি এবং যুদ্ধ কিংবা শান্তি যেকোনো পরিস্থিতির জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি’।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *